দেশের কোনো আদালতে জামিন চাইতে পারবেন না তুফান

বগুড়ার বহুল আলোচিত বহিষ্কৃত শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকার ৬ মাস দেশের কোনো আদালতে জামিন চাইতে পারবেন না বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে জ্ঞাত আয়বহির্ভূতভাবে সম্পদ অর্জনের মামলায় তার জামিন বিষয়ে রুল খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। জামিন বিষয়ে রুল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় আবারও জামিন আবেদন করায় এ আদেশ দিয়েছেন দেশের উচ্চ আদালত। আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার সাজ্জাদ হোসাইন। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহ আলম সরকার।

গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর জ্ঞাত আয়বহির্ভূতভাবে সম্পদ অর্জনের মামলায় বগুড়ার বহুল আলোচিত বহিষ্কৃত শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারকে কেন জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। এ রুল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় একই বেঞ্চে গত ৯ মার্চ জামিন চেয়ে নতুন করে আবেদন করেন তুফান সরকার।

গত ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর বগুড়া সদর থানায় তুফান সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। মামলায় বলা হয়, জ্ঞাত আয়বহির্ভূতভাবে এক কোটি ৫৯ লাখ ৫৮ হাজার ৮৮৫ টাকা অর্জন করেছেন তুফান সরকার। যা তার আয়কর রিটার্নে দেখিয়েছেন। বাস্তবে আসামি তুফান সরকারের আয়ের কোনো বৈধ উৎস ছিল না।

বগুড়ায় মা ও মেয়েকে নির্যাতনের পর মায়ের মাথা ন্যাড়া করার অভিযোগের মামলায় ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই থেকে তিনি কারাবন্দি আছেন। এরই মধ্যে এ মামলায় হাইকোর্ট তার জামিনের আবেদন খারিজ করেছেন। এর বাইরে তার বিরুদ্ধে দুদক জ্ঞাত আয়বহির্ভূতভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *