রাজশাহীতে মহাষ্টমীর মধ্য দিয়ে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত

রাজশাহীতে মহাষ্টমীর মধ্য দিয়ে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত

রাজশাহীতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজার মহাঅষ্টমীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে কুমারী পূজা। গতকাল বুধবার (১৩ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে কোভিড পরিস্থিতি মাথায় রেখে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে সকাল ৯টায় দেবীর আরাধনার মাধমে মহাঅষ্টমী শুরু হয়। মহাঅষ্টমীর মূল আকর্ষণ ছিলো কুমারী পূজা। বেলা ১১টা ৫ মিনিটে শুরু হয় কুমারী পূজার আনুষ্ঠানিকতা। পদ্ম ফুল হাতে কুমারীর আগমনের সঙ্গে সঙ্গে উলু ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে মন্ডপে।

এ বছর কুমারী পূজায় দেবীর আসনে বসানো হয়েছে মহানগরীর সাগরপাড়া এলাকার প্রথম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ইন্দুপ্রভা তিতলি দাস (৬) কে। এছাড়া অষ্টমীর সন্ধিপূজা সম্পন্ন হয়েছে। এসময় দেওয়া হয়েছে পুষ্পাঞ্জলি। একাধিক পুরোহিতরা জানান, দুর্গা মাতৃভাবের প্রতীক আর কুমারী নারীর প্রতীক। কুমারীর মধ্যে মাতৃভাব প্রতিষ্ঠাই এ পূজার মূল লক্ষ্য। দেবী দুর্গার সামনে বসিয়ে ঠিক যেভাবে তার (দুর্গার) আরাধনা করা হয়, একইভাবে কুমারীকে সে সম্মান প্রদান করা হয়।

শুধু মাটির প্রতিমা নয়, নারীর মধ্যেও মাতৃভাব আনা হয়। বিশুদ্ধ স্বভাবের গুণাবলী দেখে একজন নারীকে কুমারী হিসাবে নির্বাচিত করা হয়। পূজার আগ পর্যন্ত কুমারীর পরিচয় গোপন রাখা হয়।

এবিষয়ে রাজশাহী মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ ডেইলি নববার্তাকে জানান- ভক্তদের বিশ্বাস, পরিস্থিতি মাতৃরূপ উপলব্ধি করাই কুমারী পূজার লক্ষ্য। সকালে নির্দিষ্ট কুমারীকে স্নান করিয়ে নতুন কাপড় পরিয়ে ফুলের মালা, চন্দন ও অলংকার-প্রসাধনী দিয়ে নিপুণ সাজে সাজানো হয় কুমারীকে। এরপর শুরু হয় কুমারী পুজা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *