মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৪:১৬ অপরাহ্ন

sakarya escort sakarya escort sakarya escort serdivan escort webmaster forum

serdivan escort serdivan escort serdivan escort hendek escort ferizli escort geyve escort akyazı escort karasu escort sapanca escort

জামিন পেলেন টালিউড অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ

বিনোদন প্রতিনিধি
  • আপডেট : সোমবার, ২২ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪২ বার পঠিত
Saayoni Ghosh
অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ

গ্রেপ্তার হওয়ার একদিন পরই জামিন পেয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস যুবনেত্রী সায়নী ঘোষ। সোমবার বিকেল পৌঁনে ৫টা নাগাদ সায়নীকে পেশ করা হয় আগরতলা আদালতে। পুলিশ সায়নীকে দুই দিনের জন্য হেফাজতে চেয়ে আদালতে আবেদন করে। তবে শুনানির পর তাকে জামিন দেন বিচারক। খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

তার পরই আদালত থেকে বেরিয়ে সায়নী বলেন, ‘‘আদালতের প্রতি বিশ্বাস ছিল। এটা সত্যের জয়। যে পথে লড়াই করেছি, সেই পথেই লড়ব। মিথ্যা মামলা করে দমানো যাবে না।’’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘‘আমাকে তো শারীরিক ভাবে হেনস্থাও করা হয়েছে। রাতে যে ভাবে আক্রমণ করা হয়েছে, তাতে আমি শঙ্কিত হয়ে পড়ি। তার পর আমাকে অন্য একটি পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।’’ এর পর সায়নীর বক্তব্য, ‘‘দিদি-র সঙ্গে রাতে কথা হয়েছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে ভাবে সাহায্য করেছেন, তা মনে থাকবে। একই সঙ্গে বলব, এখানকার আমাদের দলের কর্মীরাও আমার জন্য সারাক্ষণ লড়াই করেছেন। আমরা এক ইঞ্চিও জমি ছাড়ছি না।’’

রোববার (২১ নভেম্বর) সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করেছিল আগরতলা পুলিশ। তাদের দাবি ছিল, গাড়ি চাঁপা দিয়ে মানুষকে হত্যার চেষ্টা করেছিলেন অভিনেত্রী। এ জন্য তাকে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। কিন্তু গ্রেফতারের এক দিন পরই মুক্তি পেলেন তরুণ এ নেত্রী।

আগামী ২৫ নভেম্বর আগরতলা পৌরসভা নির্বাচন। এ জন্য সেখানে তৃণমূলের প্রচারণার জন্য গেছেন সায়নী ঘোষ। তার সঙ্গে রয়েছেন দলটির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। শনিবার (২০ নভেম্বর) ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সভার পাশ দিয়ে গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন। সে সময় তাকে দেখে ভিড় করে জনগণ।

তবে পুলিশের দাবি, ওই সময় জোরে গাড়ি চালিয়ে এক ব্যক্তিকে আহত করেন সায়নী। এ কারণে পরদিনই পুলিশ তাকে আটকে। অনেকক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। অন্যদিকে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ দাবি করেন, ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যেপাধ্যায়ের সোমবারের (২২ নভেম্বর) সভা বানচাল করতেই এসব করা হয়েছে।

পুলিশের অভিযোগের বিষয়ে তৃণমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, শনিবার (২০ নভেম্বর) রাতে নির্বাচনী প্রচার সেরে হোটেলে ফিরছিলেন সায়নী ঘোষ। গাড়িতে চালকের পাশের আসনে বসেছিলেন তিনি। এ সময় যানজটে আটকে যায় তার গাড়ি। গাড়ির পেছনের আসনে বসেছিলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ ও সুদীপ রাহা। গাড়িটি যানজটে আটকে যাওয়ায় আশেপাশের লোকেরা সায়নীকে দেখে হাত নাড়েন ও ‘খেলা হবে’ স্লোগান দিতে থাকেন। এই ঘটনাকে সাজিয়ে হত্যাচেষ্টার মামলা করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© All rights reserved © 2021 Dailynobobarta
Developed By Dailynobobarta