রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৭ পূর্বাহ্ন

sakarya escort sakarya escort sakarya escort serdivan escort webmaster forum

serdivan escort serdivan escort serdivan escort hendek escort ferizli escort geyve escort akyazı escort karasu escort sapanca escort

লক্ষ্মীপুরে নির্বাচনী মাঠে একই পরিবারের ৫জন, রয়েছে ভাতিজাও

কিশোর কুমার দত্ত, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট : শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪৪ বার পঠিত
লক্ষ্মীপুরে নির্বাচনী মাঠে একই পরিবারের ৫জন

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে একই পরিবারের চেয়ারম‍্যান, সাধারণ সদস‍্য ও সংরক্ষিত নারী সদস‍্য পদে ৬জন প্রতিদ্ধন্দ্ধিতা করছেন। উপজেলার ৮নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন বাবা আবদুর রশীদ মোল্লা। ওই ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে সদস‍্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ভাতিজা ও দুই ছেলে সদস্য পদে নির্বাচন করছেন। এছাড়াও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে দুই মেয়ে নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন।

জানা গেছে, উত্তর চরবংশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রশিদ মোল্লা দলের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র পদে নির্বাচন করছেন। এজন্য গেল ১৯ নভেম্বর তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। স্থানীয়রা জানিয়েছে, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রশিদ মোল্লার ছেলে জাকির হোসেন মোল্লা (ফুটবল) ও দিদার হোসেন মোল্লা (ঘুড়ি) সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়ে তাহমিনা আক্তার ঝর্ণা সংরক্ষিত ১, ২, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ও জোসনা বেগম সংরক্ষিত ৭, ৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন। দুইজনেরই প্রতীক মাইক। এছাড়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রশিদ মোল্লার ভাতিজা আবু সুফিয়ান মোল্লা সদস্য পদে (মোরগ) ভোট করছেন। একই পরিবারের ছয়জনের নির্বাচন নিয়ে এলাকায় ভোটারদের মাঝে নানা আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

স্থানীয়রা জানায়, রশিদ মোল্লাসহ তার পরিবারের ছয় সদস্য ভোটের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাও আবার তার দুই ছেলে একই ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী। ভোট শেষে গণনা পর্যন্ত তারা আলোচনায় থাকবেন। সাধারণ ভোটাররা তাদের নির্বাচনী প্রচারণা উপভোগ করছেন। ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কয়েকজন ভোটার জানায়, এ ওয়ার্ডে দুই ভাই জাকির ও দিদার সদস্য পদে লড়ছেন। পাল্লা দিয়ে দুজনই ভোটারদের কাছে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন। তাদের বাবা চেয়ারম্যান প্রার্থী। তিনিও নিজের জন্য ভোট চেয়ে মানুষের কাছে ছুটে যাচ্ছেন।

কয়েকজন নারী ভোটার জানায়, দুই বোন সংরক্ষিত দুটি ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করছেন। তারা যেমন আপন বোন, তেমনই তাদের প্রতীকেরও মিল রয়েছে। ভোটের ফলাফলে তাদের জনপ্রিয়তার প্রমাণ মিলবে। জাকির হোসেন মোল্লা বলেন, জনগণ আমার পাশে আছে। মাঠে বিপুল সাড়া পেয়েছি। সুষ্ঠু ভোট হলে আমিই সদস্য নির্বাচিত হবো।

দিদার হোসেন মোল্লা বলেন, ভোট দেওয়ার মালিক জনগণ। তাদের পরামর্শেই আমি নির্বাচনে নেমেছি। শেষ পর্যন্ত থাকব। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রশিদ মোল্লা বলেন, দলের জন্য অনেক ত্যাগ রয়েছে। কিন্তু দল থেকে আমাকে মূল্যায়ন করেনি। জনগণের সাড়া নিয়ে ভোটের মাঠে নেমেছি। সুষ্ঠু ভোট হলে জনগণ আমাকে চেয়ারম‍্যান নির্বাচিত করবে।

ছেলেমেয়েদের নির্বাচনের বিষয়ে রশিদ মোল্লা বলেন, জনগণের সেবার জন্য তারা ভোটের মাঠে নেমেছে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে নিজেদের প্রমাণিত করে তারা জনগণের সেবা করতে চেয়েছে। নির্বাচন এর অন্যতম মাধ্যম। আমি তাদের উদ্যোগকে সমর্থন করেছি। প্রসঙ্গত, আগামী ২৮ নভেম্বর দক্ষিণ চরবংশীসহ জেলার রায়পুর উপজেলায় ১০টি ইউনিয়ন, রামগঞ্জে ১০ ইউনিয়ন ও লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© All rights reserved © 2021 Dailynobobarta
Developed By Dailynobobarta