dailynobobarta logo
আজ মঙ্গলবার, ২৯ আগস্ট ২০২৩ | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | কনভার্টার
  1. অন্যান্য
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলাধুলা
  5. গণমাধ্যম
  6. ধর্ম
  7. প্রযুক্তি
  8. বাংলাদেশ
  9. বিনোদন
  10. বিশেষ নিবন্ধ
  11. লাইফস্টাইল
  12. শিক্ষা
  13. শিক্ষাঙ্গন
  14. সারাদেশ
  15. সাহিত্য

মণিরামপুর উপজেলা আ’লীগের জাতীয় শোক দিবস পালন

প্রতিবেদক
অমিতাভ মল্লিক, যশোর প্রতিনিধি
মঙ্গলবার, ২৯ আগস্ট ২০২৩ | ১০:৩৭ অপরাহ্ণ
মণিরামপুর উপজেলা আ'লীগের জাতীয় শোক দিবস পালন

যশোর জেলার মণিরামপুর উপজেলায় স্বাধীনতার মহানায়ক, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট নিহত শহীদদের ৪৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার (২৯ শে আগষ্ট) বিকাল ৩:০০ ঘটিকা মনিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মো: মিকাইল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন- মনিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মনিরামপুর উপজেলার নির্যাতিত মানুষের একমাত্র আশ্রয়স্থল ও গরিব-দুঃখীদের মা, চেয়ারম্যান উপজেলা পরিষদ মনিরামপুর, সদস্য যশোর জেলা আওয়ামী লীগ নাজমা খানম ও আলহাজ্ব এস এম ইয়াকুব আলী সদস্য কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সহ-সভাপতি যশোর জেলা কৃষকলীগ, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক স.ম আলাউদ্দীন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা সন্দীপ ঘোষ, সাবেক ছাত্রনেতা, সাবেক পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক, বর্তমান উপজেলা যুবলীগের সদস্য পলাশ কুশারী, মনিরামপুর পৌর যুবলীগের তরুণ প্রজন্মের অহংকার, যুব সমাজের আশার বাতি ও একমাত্র আশ্রয়স্থল সাবেক ছাত্রনেতা ও বর্তমান মনিরামপুর পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি, পৌর কাউন্সিলর ও উপজেলা যুবলীগের সদস্য আইয়ুব পাটোয়ারী ও আব্দুল কুদ্দুস।

আরও উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা যুবলীগ নেতা শিমুল কুশারী, কাউন্সিলর বাবুল আক্তার বাবুল, সাবেক কাউন্সিলর গৌর কুমার ঘোষ, উদীয়মান যুবনেতা আসিফ খান অভি, মোঃ আবুল ইসলাম সভাপতি বাংলাদেশ কৃষকলীগ মনিরামপুর উপজেলা, মনিরামপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রমেশ দেবনাথ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক জামাল হোসেন, ৫নং হরিদাসকাটি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নিরঞ্জন প্রসাদ বিশ্বাস, এমএম ফারুক হোসেন চেয়ারম্যান, ১৬ নং নেহালপুর ইউনিয়ন, ৯ নং ঝাপা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান মন্টু, তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা সবুজ কর, যুবলীগ নেতা শিপন সরদার, সহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা ও নেতৃবৃন্দ ।

নাজমা খানম বলেন- করোনা কালীন সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশে যখন আমি মনিরামপুর উপজেলা ব্যাপি ত্রাণের চাল বিতরণ করতে রাত দিন কঠিন পরিশ্রম করে যাচ্ছি তখনই প্রতিমন্ত্রীর ভাগ্নে উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চু ৫৫৫ বস্তা চাল চুরিতে ব্যস্ত। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বলেছেন, বাগানের শ্রেষ্ঠ ফুলটি আমি খুঁজে বের করবো, এটাই যদি হয় বঙ্গবন্ধু কন্যার সিদ্ধান্ত তাহলে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী। জনগণ আমাকে তিনবার ভোট দিয়ে জন- প্রতিনিধি বানিয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকার মনোনয়ন দিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান করেছেন। আমৃত্যু আমি জনগণের সেবা করে যেতে চাই। নিজের স্বামীর উপার্জিত অর্থ দিয়ে মনিরামপুর বাসীর জন্য যেভাবে আমি জনসেবা করে যাচ্ছি, জনগণের পাশে থেকে আমি সেই সেবা করে যেতে চাই।

ফারুক হোসেন বলেন- বাক বাকুম বাক বাকুম, জনপ্রতিনিধির কথা শুনুন, জনপ্রতিনিধির কথা শুনতে যেয়ে আওয়ামী লীগ পরিবার নির্যাতিত হচ্ছে, হাইব্রিড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ নির্যাতন করছে মনিরামপুর উপজেলা বাসিকে। প্রত্যেকটা সরকারি দপ্তরে বসানো হয়েছে সিন্ডিকেট, সেই সিন্ডিকেট দিয়ে চলছে নিয়োগ বাণিজ্য। বাক বাকুম বাক বাকুম ভাগ্নের কথা শুনুন, ভাগ্নের দ্বারা মনিরামপুর উপজেলার বিভিন্ন সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। তাই আমরা আগামীতে সংসদ সদস্য হিসেবে নতুন মুখ দেখতে চাই।

ইয়াকুব আলী বলেন, তৃণমূল আওয়ামী লীগ কে সাথে নিয়ে নতুন নেতৃত্বের মাধ্যমে মনিরামপুর উপজেলা বাসির ভাগ্য নির্ধারণ হবে। সৎ এবং যোগ্য ব্যক্তিকেই নৌকার মনোনয়ন নিয়ে আমরা এমপি নির্বাচিত করবো।

গৌর কুমার ঘোষ বলেন, অন্যায় অত্যাচারী মানুষকে আমরা আর জন প্রতিনিধি বানাতে চাই না। মনিরামপুরের অগ্নি কন্যা নাজমা খানম, দুইবার উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পরবর্তীতে নৌকার মনোনয়ন নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সভায় বক্তারা বলেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলেন বাঙালি জাতির মুক্তির স্বপ্নদ্রষ্টা, তিনিই বাঙালি জাতিকে এনে দিয়েছেন স্বাধীনতা ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। আজ বঙ্গবন্ধু আমাদের মাঝে নেই, কিন্তু তার স্বপ্ন, আদর্শ ও নির্দেশনা আজও আমাদের সঠিক পথ দেখায়। আর তার দেখানো পথ ধরেই তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মুক্তির পথে এগিয়ে চলেছেন। অনুষ্ঠান শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়

অমিতাভ মল্লিক, যশোর প্রতিনিধি
যশোর প্রতিনিধি | Website | + posts

সর্বশেষ - মানিকগঞ্জ